ঘুষের ৫ লাখ টাকাসহ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অডিটর হাতে নাতে ধরা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শ্রমিক-কর্মচারীদের বকেয়া বেতন-ভাতার জটিলতা নিরসনের জন্য পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ নেয়ার দায়ে জেলা হিসাব রক্ষণ অফিসের অডিটর কুতুব উদ্দিনকে আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) বিকালে নিজ কার্যালয় থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছে।

বিকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী আব্দুল হাই, নজরুল ইসলাম ও হুমায়ূন কবির ঘুষের পাঁচ লাখ টাকা নিয়ে জেলা হিসাবরক্ষণ অফিসে যায়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে ন্যাশনাল সিকিউরিটি ইন্টিলিজেন্সের (এনএসআই) সদস্যরা বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করে। পরে গোয়েন্দা সংস্থার লোকেরা জেলা হিসাবরক্ষণ অফিসের অডিটর কুতুব উদ্দিনকে ঘুষের পাঁচ লাখ টাকাসহ আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।
আরও জানা গেছে, সড়ক ও জনপথ বিভাগের ‘ওয়ার্ক চার্জে’ কর্মরত ৬৩ জন কর্মীর ১ কোটি ৭ লাখ টাকার বিল আসে। এর আগে ৬০ লাখ টাকার উপরে টাকা নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার পূর্বের বেতন ভাতার মোট ১ কোটি ৭ লাখ পেতে অডিট অফিসের সঙ্গে চুক্তি করে। প্রথম দফায় ৬৪ লাখ টাকা নিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার বাকি ৪৩ লাখ টাকার বিল করা হয়েছিল।

এই ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ২নং ফাঁড়ির পরিদর্শক সোহাগ রানা বলেন, এই ঘটনায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হবে। আমরা মামলাটি দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কাছে পাঠাব। দুদক মামলাটি তদন্ত করবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন