করোনায় মৃত ব্যক্তির দাফনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের বিশেষ দল গঠন

স্টাফ রিপোর্টার: দেশে করোনা দুর্যোগকালীন সময়ে হযরত পীর সাহেব চরমোনাই’র বিশেষ নির্দেশনা বাস্তবায়নে বুধবার (৮এপ্রিল) সন্ধ্যায় কাজিপাড়াস্থ সৈয়দবাড়িতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ইসলামী আন্দোলনের জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে । জেলা সভাপতি অধ্যাপক মাওলানা আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি আলহাজ্ব মোহাম্মদ ওবাইদুল হকের সঞ্চালনায় এ বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয় । এতে উপস্থিত ছিলেন, আলহাজ্ব সৈয়দ আনোয়ার আহমদ, আলহাজ্ব সৈয়দ আবু ছালেহ, হাফেজ মাওলানা ইসমাঈলিআল মাদানী, হাফেজ মাওলানা সামছ্ আল ইসলাম ভূঁইয়া ও আব্দুল করীম হাওলাদার প্রমুখ ।

দেশে চলমান করোনাভাইরাসের দুর্যোগকালীন সময়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কর্মহীন, গরিব অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ও করোনায় মৃতদের গোসল, কাফন, জানাযা, দাফন এবং ভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের লাশ বহনসহ সার্বিক সহযোগিতা করতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখা ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে নিয়ে বিশেষ দল গঠন করা হয় । ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর ও নবীনগর উপজেলা শাখার মত জেলার সকল উপজেলায় ত্রাণ বিতরণ করা হবে । (বৃহস্পতিবার) কসবা উপজেলা শাখায় ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে ।

অধ্যাপক মাওলানা আবুল কালাম আজাদকে প্রধান করে ১৭জনের একটি দল গঠন করা হয়।
সহকারী প্রধান হিসেবে রয়েছেন আলহাজ্ব সৈয়দ আনোয়ার আহমদ, সমন্বয়কারী আলহাজ্ব মোহাম্মদ ওবাইদুল হক। এছাড়াও সদস্য হিসেবে রয়েছেন আলহাজ্ব সৈয়দ আবু ছালেহ,
মাওলানা ক্বারী আব্দুল মালেক ফয়েজী, শেখ মুহাম্মদ শাহ আলম, আলহাজ্ব শফিকুল ইসলাম ওয়ালী, মাওলানা মাহমূদুল হাসান হিফয্, মাওলানা বেলাল হোসাইন, হাফেজ মাওলানা সামছ্ আল ইসলাম ভূঁইয়া, হাফেজ মাওলানা ইসমাঈল অাল মাদানী, হাফেজ মাওলানা হোসাইন আহমদ আজাদী, মুফতী ইউসুফ আহমদ, মাওলানা মুহসিনুল করীম হারুনী, হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমদ ছাতিয়ানী, মুহাম্মদ আল মামুন ও মুহাম্মদ আল আমিন সিরাজী ।

এ বিষয়ে দল প্রধান অধ্যাপক মাওলানা আবুল কালাম আজাদ বলেন, করোনা একটি ভয়ানক ব্যধি যা কাউকেই রক্ষা করছে না। এমন অবস্থায় কেউ ই মৃত ব্যক্তির পাশে যেতে চায় না। আমাদের ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী একটি লাশকে দাফন করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। তাই আমরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ইসলামী আন্দোলন শাখা এ সিদ্ধান্ত নিয়ে বিশেষ টিম ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় কাজের জন্য থানা ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী টিম গঠন করা হবে । এখন থেকে বিশেষ টিম সেবা দেয়ার জন্য সার্বিকভাবে প্রস্তুত নিচ্ছে ।

প্রশাসনের সাথে সমন্বয়ের কথা জিজ্ঞেস করলে তিনি কালের দর্পণকে বলেন, আমরা নিজেরা একটা সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছি আমরা এ কাজটি করবো। প্রশাসনের সহযোগিতা আমরা এখনও চাই নি। আশা করি প্রশাসন আমাদেরকে সঙ্গে রেখেই এ কাজটি সম্পন্ন করবেন।

তিনি সকলকে আহবান করেন, যারা স্বেচ্ছায় এই কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করার ইচ্ছা রয়েছে তারা যোগাযোগ করতে পারেন । ইনশাআল্লাহ সবাইকে প্রয়োজনে অংশ নেয়ার সুযোগ প্রদান করা হবে ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন