থানাকান্দিতে নিহত মোবারকের অসহায় পরিবারের পাশে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিছুর রহমান

নবীনগর: নবীনগর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের থানাকান্দিতে বর্বর ও পৈশাচিক হামলার শিকার পা হারানো মোবারকের মৃত্যু সংবাদ শুনেই ঘটনাস্থলে ছুটে যান ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিছুর রহমান।

বুূধবার (১৫এপ্রিল) দুপুর সাড়ে বারটার দিকে থানাকান্দিতে গিয়ে পৌঁছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিছুর রহমান। এসময় একটি অটো রিকশায় করে আসা নিহত মোবারকের স্ত্রী ও পুত্রকে তিনি শান্তনা দিয়ে বলেন, ‘মোবারকেরর হত্যাকারীদের প্রত্যেককেই আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা হবে।


এসময় তিনি নিহত রিকশা চালক মোবারক মিয়ার অসহায় পরিবারটিকে বিভিন্নভাবে সাহায্যের আশ্বাস প্রদান করেন।
এসময় পুলিশ সুপারের সাথে জেলার উর্ধতন পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে, গত ১২ এপ্রিল নবীনগর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের থানাকান্দি গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মোবারক হোসেনের পা কেটে নিয়ে প্রতিপক্ষ আনন্দ-উল্লাস ও জয়বাংলা স্লোগানে মুখোরিত করে প্রদক্ষিণ করেছিল পুরো গ্রাম। যা পরবর্তীতে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে নিন্দার ঝর উঠেছিল। পুলিশের জোরালো ভূমিকায় মূল দুই হোতাসহ মোট ৪৩ জনকে আটক করে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন