নবীনগরে শিক্ষিত বেকার পুত্রের বটির কোপে প্রকাশ্যে বাবা খুন

নবীনগর প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা সদরের আলমনগর পথচারীদের সামনেই নৃশংসভাবে কুপিয়ে বাবাকে হত্যা করে স্নাতকোত্তর বেকার ছেলে। নিহত আমির হোসেন একজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মৃত আমির হোসেন কয়েক বছর ধরে নবীনগর সদরের পশ্চিম পাড়ায় বাড়ি কিনে স্থায়ীভাবে বসবাস করছিলেন। সেনাবাহিনী থেকে অবসর নিয়ে কয়েক বছর আগে তিনি বিদেশে চলে যান। সম্প্রতি বিদেশ থেকে আসার পর তার বড় ছেলে (মাস্টার্স পাস) আরাফাত ইসলাম শুভ (২৪) তার বেকারত্ব ঘোচাতে বাবার কাছে দুই লাখ টাকা চায়। নবীনগর বাজারে এক পার্টনারের সঙ্গে একটি দোকান দিয়ে বইয়ের ব্যবসা করতে টাকা দিতে বাবাকে আবারও অনুরোধ করে শুভ। কিন্তু বাবা কোনোভাবেই ছেলেকে টাকা দিতে রাজি হচ্ছিলেন না।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনার দিন শুক্রবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ১০টার দিকে শুভ তার বাবার কাছে পুনরায় টাকা চাইতে গেলে বাবা টাকা দিতে পারবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেন। পরে বাবা বাড়ি থেকে বেরিয়ে আলমনগর সড়কের ওপর দিয়ে যখন হেঁটে যাওয়ার সময় ক্ষুব্ধ শুভ ঘর থেকে দা এনে প্রকাশ্যে পথচারীদের সামনেই পেছন থেকে বাবার মাথায় এলোপাতাড়িভাবে কোপাতে থাকে। দায়ের একাধিক কোপে রক্তাক্ত অবস্থায় বাবা মাটিতে লুটিয়ে পড়লে ছেলে দ্রুত পালিয়ে যান। পরে পথচারীরা আশঙ্কাজনক অবস্থায় আমির হোসেনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠালে পথিমধ্যে তার মৃত্যু ঘটে। খবর পেয়ে নবীনগর থানার ওসি, পরিদর্শক (তদন্ত)-সহ পুলিশের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নবীনগর থানার ওসি রণজিৎ রায় নারীশিশু.কমকে জানান, এটি একটি লোমহর্ষক ঘটনা। প্রকাশ্যে এভাবে রাস্তায় মানুষের চোখের সামনে ছেলে তার বাবাকে কুপিয়ে মারল, অথচ একটি লোক এগিয়ে এলো না। এটি সত্যিই উদ্বেগজনক। পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। খুনিকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশের একাধিক টিম মাঠে নেমেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন