বহুল আলোচিত আ’লীগ নেতা শাহ আলমের ওএমএস ডিলারশিপ অবশেষে বাতিল

ব্রাহ্মণবাড়িয়া: বহুল আলোচিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মো. শাহ আলমের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ডিলারশীপ অবশেষে বাতিল করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে জেলা ওএমএস কমিটির সভায় তার ডিলারশিপ বাতিলের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

জেলা ওএমএস কমিটির সদস্য সচিব ও খাদ্য নিয়ন্ত্রক সুবীর নাথ চৌধুরী জানান, খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির বিভিন্ন অনিয়মের বিষয়ে ডিলার মো. শাহ আলমের কাছে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়। তিনি লিখিত একটি ব্যাখ্যা দিয়েছিলেন। আজকে (বুধবার) জেলা ওএমএস কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সভাপতিত্বে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় তার দেওয়া ব্যাখ্যা ও নানান বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। কমিটি শাহ আলমের ব্যাখ্যায় সন্তোষ হননি। সভায় উনার ডিলারশিপ বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়।

উল্লেখ্য যে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক, জেলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক শাহ আলম সরকার ঘোষিত ভিক্ষুক ও ভবঘুরেসহ হতদরিদ্র এবং নিম্নআয়ের মানুষের জন্য ১০টাকা কেজি চালের পৌরসভার ১০নং ওয়ার্ডে ওএমএস এর ডিলার। ডিলার ও বিত্তশালী হয়েও স্ত্রী মোছাম্মৎ মমতাজ আলম, মেয়ে আফরোজা, ভাই মো. সেলিম (পরিবহন শ্রমিক নেতা), ভাই মো. আলমগীর, বোন শামসুন্নাহার, ভাইয়ের ছেলে প্রবাসী নাছির, শ্যালক তাজুল ইসলাম, শ্যালক শফিকুল ইসলাম, আরেক শ্যালকের স্ত্রী জান্নাতুল ইসলাম, বোনের তিন দেবর মতিউর রহমান, মাহবুবুর রহমান ও লুৎফুর রহমানের নাম হতদরিদ্রের সেই তালিকায় দিয়েছিলেন। বিষয়টি প্রকাশ হওয়ার পর ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন