মানুষের দরজায় উপস্থিৎ হয়ে খোঁজ খবর নিচ্ছেন নাছিমা মুকাই আলী

 

এস এম টিপু চৌধুরী: সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাবে আজ আতঙ্কিত। আর সেই আতংকের মাঝেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নারী হয়েও ঘরে বসে নেই। জনগণের টানে তার নিজ নির্বাচনী এলাকার বিভিন্ন স্থানে প্রতিদিনই উপস্থিত হয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে মানুষের খোঁজ খবর নিচ্ছেন বিজয়নগর উপজেলার প্রথম নারী চেয়ারম্যান নাছিমা মুকাই আলী। তিনি উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে করোনা থেকে বাঁচার উপায় সমন্ধে জনসচেতনামূলক নানা কলাকৌশল ও পরামর্শ দিচ্ছেন। মানুষের মধ্যে সাহস জোগাতে চেষ্টা চালাচ্ছেন।

জনসাধারণকে করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ প্রদান করছেন নিয়মিত। এ ছাড়াও করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে জনসচেতনায় বৃদ্ধি করণের পাশাপাশি জনগণের মাঝে জীবাণুমুক্ত উপকরণ সামগ্রী মাস্ক, গ্লাভস, সাবান, স্যানিটাইজার বিতরণসহ বিভিন্ন হাট বাজারে করোনা ভাইরাসের সচেতনামূলক লিফলেট মানুষের নিকট পৌঁছে দিচ্ছেন তিনি।  (৩ এপ্রিল) শুক্রবারে তিনি সিঙ্গারবিল ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে উপস্থিত হয়ে কর্মহারা লোকের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন। পরে উপজেলার সিঙ্গারবিল ইউনিয়নের মেরাশানি বাজার, নলগড়িয়া, কাশিনগর বাজারসহ আশপাশের এলাকায় মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খোঁজ খবর নেন।

জরুরী প্রয়োজন ছাড়া যেন কেউ ঘর থেকে বাহির না হয় এবং গণজমায়েত এড়িয়ে চলতে পরামর্শ দেন। জনসাধারণকে করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হওয়ার পরামর্শ প্রদান করেছেন চেয়ারম্যান মুকাই আলী। এসময় করোনা ভাইরাসের বিষয়ে সবাই যেন সতর্কতা অবলম্বন করেন। সরকারের বিভিন্ন দিক নির্দেশনা সঠিকভাবে পালন করার জন্য আহবান জানান। তিনি আরো বলেন, করোনা ভাইরাস একটি অদৃশ্য ভাইরাস। তাই আমরা সবাই একটু সচেতন হই। একটু পরপর সাবান দিয়ে ২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে হাত ধূয়ে নেব। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে আমাদের একমাত্র যুদ্ধ হল ঘরে আবদ্ধ থাকা। সবাইকে সচেতন হয়ে ঘরে থাকার জন্য তিনি অনুরোধ জানান। তিনি আল্লাহকে স্মরণ করার পরামর্শ দেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন