ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নতুন সিভিল সার্জনের’ যোগদান

স্টাফ রিপোর্টার: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নতুন সিভিল সার্জন মোহাম্মদ একরাম উল্লাহকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিয়েছেন সদ্য ওএসডি হওয়া সিভিল সার্জন ডা. মো. শাহ আলম।

ফলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় নতুন সিভিল সার্জন হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক ডা. মোহাম্মদ একরাম উল্লাহ। এর আগে গত ২২মার্চ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অধিনে ওএসডি করা হয় সিভিল সার্জন ডা. মো. শাহ আলমকে।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব শারমিন আক্তার জাহান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে তাকে ওএসডি করা হয়।

তার স্থলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন হিসেবে পদায়ন করা হয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক ( ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেলথ) ডা. মোহাম্মদ একরাম উল্লাহকে।

সারাদেশে করোনাভাইরাসের সতর্কতায় জনসমাগম, মাহফিল, সমাবেশ ও সামাজিক অনুষ্ঠান আয়োজনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার৷   তিনি সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে গত ২০ মার্চ শুক্রবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডা. শাহ আলম তার সরকারি বাসভবনে ঘনঘটা করে তার মেয়ের বিয়ের আয়োজন করেন। বিয়েতে দাওয়াত দেয়া হয় সরকারি চিকিৎসকসহ প্রায় ৩০০ জন অতিথিকে। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ দেশের সকল গণমাধ্যমে সমালোচনা ও নিন্দার ঝড় উঠে।

উল্লেখ্য যে,  গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি হাসপাতালে বহি. বিভাগের ফটক ও বন্ধ করে জমকালো অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করে আতশবাজি ফুটিয়ে আলোচিত ওসমালোচিত হন ডা. মো. শাহ আলম। ব্যাপক সমালোচনার মুখে অবশেষে তাকে ওএসডি করার পর বৃহস্পতিবার নতুন সিভিল সার্জনকে দায়িত্ব বুঝিয়ে দিলেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন