ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল জেলাবাসীর কল্যাণে নিবেদিত

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল জেলাবাসীর কল্যাণে নিবেদিত

বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর মিছিলকে দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর করে তোলা নভেল করেনা ভাইরাস (কোভিড ১৯) ত্রাস চালিয়ে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশেও থাবা বসিয়েছে। সারাদেশের অংশ হিসেবে সরকার ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালের পাশাপাশি ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে সদর হাসপাতালের সেবা কার্যক্রম স্থানান্তরের প্রস্তাব স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয় যা জেলাবাসী অবগত। সাধারণ চিকিৎসা আর করোনা চিকিৎসা নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে মতানৈক্য তৈরী হয়েছে।

জেলাবাসীর অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, সরকার চাইলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা কেন্দ্র করতে পারে। ইতোমধ্যে উক্ত মেডিকেল কলেজে করোনার জন্য আইসোলেশন সেন্টার প্রস্তুত করা হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ব্রাহ্মণবাড়িয়া বাসীর কল্যাণে প্রতিষ্ঠিত আর তাদের জন্যই কাজ করে যাবে। কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সভাপতি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ডাঃ মোঃ আবু সাঈদ ভাই বলেন হাসপাতালে রোগীর চিকিৎসা হয় সরকার যা ভাল মনে করবেন তাই করবেন আমাদের সকল প্রকার চিকিৎসার প্রস্তুতি রয়েছে। জনমনে কোন বিভ্রান্তি বা মতানৈক্য তৈরী করা সমীচীন নয় যা থেকে আতংক তৈরী হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন