জেনে নিন এই শীতে শুষ্ক ত্বকের হাত থেকে রক্ষার উপায় | 10 Susko Toker Jotno Tips

জেনে নিন এই শীতে শুষ্ক ত্বকের হাত থেকে রক্ষার উপায় | 10 Susko Toker Jotno Tips

আপনার ত্বক কি শুষ্ক তাহলে জেনে নিন এই শীতে শুষ্ক ত্বকের যত্ন ( toker jotno tips)। শীতের হাওয়া বইতে শুরু করেছে । শীতের বাতাস মানেই আর্দ্রতা বিহীন শুষ্ক বাতাস । আর এই শুষ্ক বাতাসের জন্য অনেক মানুষেরই যে সমস্যা টা বেশি হয় তাহলো ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। যার মানে হলো ত্বকের তৈলাক্ত ভাব বা ত্বকের ময়েশ্চার হারাতে থাকে।

আমাদের সবারই কমবেশি জানা আছে যে ত্বক বা স্কিনের ধরণ আছে ৫ ধরনের। ত্বকের ৫ টি ধরণ হলোঃ
১. নরমাল স্কিন 
২. তৈলাক্ত স্কীন 
৩. ড্রাই স্কিন বা শুস্ক স্কীন 
৪. সেন্সেটিভ স্কিন 
৫. কম্বিনেশন স্কিন 

Susko Toker Jotno Tips
ত্বক শুষ্ক হওয়ার সাথে সাথে ত্বক রুক্ষ ও মলিন হয়ে যেতে শুরু করে। এ সময় ভুক্তভোগীদের পরতে হয় মানসিক দুশ্চিন্তায়। তাদের জন্য খুশির সংবাদ হলো- আমরা আজ আপনাদের মাঝে এমন কিছু health tips bangla তে শেয়ার করতে যাচ্ছি যার মাধ্যমে আপনারা এই শীতেও শুষ্ক ত্বক বা ড্রাই স্কিনের হাত হতে রক্ষা পাবেন।এর মাঝে ড্রাই স্কীন বা শুষ্ক ত্বক হলো সবচেয়ে কমন বা পরিচিত। ১৮ বছরের যুবক বা যুবতীর তুলনায় ৬৪ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সের মানুষদের ড্রাই স্কিন এর সমস্যায় বেশি পরতে হয়।

তো চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই সব উপায় গুলো যার মাধ্যমে আপনি এই শীতে শুষ্ক ত্বকের হাত হতে রক্ষা পাবেন।

Health Tips Bangla
শুষ্ক ত্বকের হাত হতে রক্ষা পেতে হলে আপনাকে শীতের দিনে পর্যাপ্ত পানি পান করতে হবে। এক্ষেত্রে দিনে নুন্যতম দেড় থেকে ২লিটার পানি পান করতে পারেন।

Susko Toker Jotno Tips

lip care tips in bengali
Thoter Jotno
  • ঠোঁট শুষ্ক হয়ে ফাটতে থাকলে কমলার রস ঠোঁটে মেখে কিছুক্ষণ থাকতে পারেন। আবার গোলাপের পাপড়ির সাথে দুধের সড় মিশে তা আপনার ঠোঁটে মাখতে পারেন। এতে করে আপনার ঠোঁট কোমল হওয়ার পাশাপাশি উজ্জ্বল ও হতে থাকবে।

Susko Toker Jotno Tips jonno ai video ti dekhte paren:

 

  • শুষ্ক ত্বকের জন্য যেহেতু শুষ্ক আবহাওয়া দায়ি সেহুতু আপনি আপনার কক্ষের আবহাওয়া আদ্র রাখতে পারেন। কারণ উষ্ণ আবহাওয়া ত্বকের জন্য খুবি উপকারী।

 

 

  • শীতের দিনে ঠাণ্ডা পানি ব্যাবহার না করাই উত্তম। ঠাণ্ডা পানি ব্যাবহার এর পরিবর্তে পানি হালকা গরম করে ব্যাবহার করুন। এক্ষেত্রে খেয়াল রাখবেন পানি জেনো বেশি গরম না হয় কারণ গরম পানি ত্বকের জন্য ভালোনা।
শীতে গরম পানি দিয়ে গোসল ভালো না খারাপ জেনে নিতে পারেনঃ
  • প্রতিবার হাত মুখ ধোয়ার পর হাত মুখ মুছে অবশ্যই ক্রিম ব্যাবহার করবেন।
হলুদ, জিরা এবং ধনিয়া
  • আপনি যদি ডায়েট করেন তাহলে অবশ্যই আপনার খাবারে হলুদ, জিরা এবং ধনিয়া রাখবেন।
  • অনেক সময় পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবের কারণে ড্রাই স্কিন এর সমস্যা হয়। তাই দৈনিক ৬-৭ ঘন্টা ঘুমানোর চেষ্টা করবেন।

 

 

  • শীতে ত্বকের সাথে সাথে ঠোঁটও যেহুতু ফাটে তাই ঠোঁট ফাটার হাত হতে রক্ষা পেতে ঘনঘন ঠোঁটে ভেসলিন মাখতে পারেন। ঠোঁট ভেজা রাখার জন্য অনেকেই জিভ দিয়ে বারবার জিভ ভেজাতে থাকেন। এটা মোটেও ঠিক নয়। এতে করে আরো ঠোঁটের ক্ষতি হয়।আপনার যদি এই অভ্যাস থেকে থাকে আজই ত্যাগ করুন। যদি দেখেন যে ঠোঁট খুব তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাচ্ছে, তাহলে ভেসলিন গাঢ় করে মাখুন। এতে করে ভেসলিন এর স্থায়িত্বতা বেশি হবে এবং ঠোঁটের ক্ষতি কম হবে।
  • রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে মুখে মধু মেখে ১৫-২০ মিনিত পর তা ধুয়ে ফেলুন। এতে করে আপনার ত্বক আর মসৃণ হবে।
  • শীত কালে নিজে নিজেই ফেশ প্যাক তৈরি করে নিতে হবে। ফেইস প্যাক তৈরি করার জন্য পাকা কলা, পাকা পেঁপে এবং ময়দা একসাথে পেস্ট করে নিতে হবে। এর পর উক্ত ফেইস প্যাক মুখে মেখে ১৫/২০মিনিট থাকার পর তা ভালো ভাবে ধুয়ে ফেলতে হবে। ফেইস প্যাক টি ধোয়ার জন্য হালকা গরম পানি ব্যাবহার করতে পারেন।

সর্বশেষ টিপস টা হলোঃ- 

শীতের সবজি
  • আমরা জানি শীত কালে শাক, সবজি সবচেয়ে বেশী পাওয়া যায়। শীতের পালং শাক, গাজর, লেবু, ফুলকপি, বাঁধাকপি ইত্যাদি বেশি পরিমাণ খেলে ত্বক ফিরে পায় যৌবন দিপ্তি ।। ফলে ত্বক মুক্তি পায় শুষ্কতার হাত হতে। যারা ফল খাওয়ার পরিবর্তে ফলের রস ত্বকে মাখেন তাদের জন্য বলা, আসলে গবেষণায় দেখা গেছে এতে কোনো লাভ হয়না। তাই নিয়মিত বেশি বেশি ফলমূল খান এবং আপনার স্কিনকে শুষ্কতার হাত থেকে রক্ষা করুন।

Health tips bangla

লেখাটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে লেখাটি অবশ্যই আপনার সোশ্যাল একাউন্টে শেয়ার করবেন।

Leave a Comment